২০২০ এর সেরা ৯ টি ই-কমার্স বই

ই-কমার্স নিয়ে ব্যবসা শুরু করে দেয়া এখন খুব সহজ। ডোমেইন কিনে ফেলবেন, হোস্টিং এড করবেন, ওয়েবসাইট বানাবেন, লোগো বানিয়ে ফেলবেন। তারপর ফেসবুক পেজ খুলে প্রোডাক্ট এর কিছু ছবি তুলে পোস্ট করা শুরু করবেন। হয়ে গেল ই-কমার্স ব্যবসা।
আসলেই কি তাই? এতই সহজ?

না। যত সহজ আমরা ভাবছি, ই-কমার্স ব্যবসা এত সহজ না। এখানে শুধু পন্য নিয়ে ভালো ভাবে জানলেই হচ্ছে না, জানতে হবে কাস্টমারের চাহিদা সম্পর্কে বিশদভাবে। কোন ধরনের অফার রাখলে মানুষ কিনবে, কি ধরনের দামের ভেতর রাখলে মানুষ আগ্রহবোধ করবে, ওয়েবসাইটের খুঁটিনাটি সম্পর্কে জানতে হবে, সঠিক ডেলিভারি কোম্পানি বেছে নিতে হবে, সঠিক সময়ে পন্য ডেলিভারি দিতে হবে। আর সর্বশেষ হচ্ছে ভালো মানের কাস্টমার সার্ভিস দিতে হবে। এই সব কিছু মিলিয়ে হচ্ছে একটা সফল ই-কমার্স ব্যবসা।

ই-কমার্স ব্যবসাতে সফল হতে হলে ৩ টি বিশেষ গুন থাকতে হবে। এই ৩ টি গুন আপনার যে কোন কাজে সফল হতে গেলেই প্রয়োজন, শুধু যে ই-কমার্স, তা কিন্তু না। আপনাকে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ হতে হবে, থাকতে হবে ধারাবাহিকতা এবং লেগে থাকার মানসিকতা এবং ধৈর্য। প্রতিনিয়ত শিখতে হবে নতুন কিছু। ব্যবসা দ্রুত পরিবর্তন হচ্ছে। টিকে থাকতেই এই সেক্টরে সংগ্রাম করতে হয়। আর লাভ করতে হলে অন্যদের থেকে আলাদা কিছু আপনাকে করতেই হবে, এর কোন বিকল্প নেই। সবচে ভালো হয়, আপনি যদি এমন লোকদের থেকে জানতে পারেন, যারা সফল ভাবে ই-কমার্স ব্যবসা করে যাচ্ছে। আর এই জন্য ভালো মানের ই-কমার্স সম্পর্কিত বই পড়লে কাজ টা সহজ হয়ে যাবে।

এই পোস্টে এই বছরের সেরা কিছু ই-কমার্স বই সম্পর্কে লিখছি। আশা করি, ভালো লাগবে আপনাদের।

E-business and E-commerce Management: ডেভিড শ্যাফি বইটির লেখক। আপনি যদি এমন একটি বই চান, যেটার মাধ্যমে ই-কমার্স ব্যবসার প্রায় সকল প্রাথমিক বিষয় সম্পর্কে ভালো আইডিয়া পাওয়া যাবে, তাহলে নিঃসন্দেহে এটা সেরা বই। ই-কমার্স ব্যবসাতে সফল হবার জন্য টেকনিক্যাল এবং ডিজিটাল মার্কেটিং বিষয়ে খুব ভালো ভাবে বইটিতে উল্লেখ করা আছে। বইটি লিখা হয়েছে আন্তর্জাতিক পাঠকদের কথা মাথায় রেখে। তার মানে হচ্ছে, আপনি যেই দেশের নাগরিক হয়ে থাকেন, আপনি কোন না কোন ভাবে যে কোন দেশে থেকেই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন।

বইটি পড়লে আপনি জানতে পারবেন কিভাবে সঠিক ভাবে পরিকল্পনা করতে হয়, কিভাবে একটা ভালো দল চালাতে হয়, কিভাবে ভালো লিডার হওয়া যায়। আপনি হতে পারেন ছাত্রী কিংবা চাকরিজীবী অথবা নতুন ব্যবসা শুরু করেছেন। যেটাই হয়ে থাকেন, বইটি পড়ার মাধ্যমে আপনি অনেক কিছু খুব ভালো ভাবে শিখতে পারবেন।

Building a StoryBrand: ডোনাল্ড মিলার লিখেছেন এই বইটি। আপনার ব্যবসার উদেশ্য কি, লক্ষ্য কি, সেগুলি কাস্টমারের সামনে তুলে ধরা খুব জরুরী। আপনার ব্র্যান্ড বা ব্যবসা সম্পর্কে স্টোরিটেলিং করে কিভাবে ক্রেতার সাথে কানেক্টেড থাকতে পারবেন, এই বইতে সেই বিষয়ে খুব ভালো ভাবে বলা হয়েছে। বইটি পড়লে আপনি খুব ভালো ভাবে জানতে পারবেন যে, কিভাবে কাস্টমারকে উৎসাহিত এবং অনুপ্রানিত করতে হয় আপনার ব্র্যান্ডের প্রতি।

Launch: জেফ ওয়াকার লিখেছেন এই বইটি। ই-কমার্স ব্যবসা যারা শুরু করতে যাচ্ছেন, তাদের কিছু ভালো প্রস্তুতির খুব দরকার। প্রস্তুতি ছাড়া মাঠে নেমে আপনি জেতা তো দূরে থাক, টিকতেই পারবেন না। হুটহাট কিছু না বুঝে ব্যবসা শুরু করে দিলে আপনি না পারবেন এতে লাভ করতে আর না পারবেন দীর্ঘমেয়াদে ব্যবসা বড় করতে। বইতে লেখক কিছু সহজ কিন্তু বাস্তব কিছু দিকনির্দেশনা দিয়েছেন, যেগুলি আপনি ফলো করতে পারলে নিশ্চিত ভাবে সফল হবেন। বইটি পড়লে বাজেট সম্পর্কে খুব ভালো ধারনা হবে আপনার। আপনার কাছে পুঁজি যাই থাক, সেটাকে কিভাবে কাজে লাগাবেন, এখানে ভালো ভাবে বলা আছে।

SEO2020: আপনার যদি ই-কমার্স ওয়েবসাইট থাকে, তাহলে ভিজিটর খুব গুরুত্বপূর্ণ। যারা আপনার টার্গেট কাস্টমার, তাদেরকে আপনার ই-কমার্স স্টোরে যদি আপনি আনতে চান, তাহলে এসইও বা সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন জানতে হবে। বইটিতে বিস্তারিত লিখা আছে, কিভাবে এসইও এর মাধ্যমে আপনি আপনার টার্গেট কাস্টমারকে গুগল থেকে আপনার সাইটে আনতে পারবেন। যত বেশী সম্ভাব্য ক্রেতা আপনার স্টোরে ঢুকবে, সেল হবার সম্ভাবনা কিন্তু তত বেশী। বর্তমানে মোবাইল দিয়ে ইন্টারনেট ব্যবহার করা ক্রেতার সংখ্যা অনেক বেশী। বইটি পড়লে আপনার ভালো ধারনা হবে যে কিভাবে আপনার ই-কমার্স ওয়েবসাইটকে মোবাইলের জন্য অপটিমাইজ করতে হয়।

The Startup Owner’s Manual: এই বইটি কেবল যারা ই-কমার্স নিয়ে ব্যবসা করে যাচ্ছেন তাদের জন্য না, বরং এটা তাদের জন্য বেশী দরকার যারা কোন ব্যবসা শুরু করতে যাচ্ছেন, কিন্তু জানেন না কিভাবে শুরু করবেন। বইটি পড়লে ব্যবসা কিভাবে শুরু করতে হবে, কি কি প্রস্তুতি দরকার, সব কিছু সম্পর্কে ভালো আইডিয়া পেয়ে যাবেন। স্বল্পমেয়াদে যারা ব্যবসা করতে চান এবং যারা দীর্ঘমেয়াদে করতে চান, সকলের জন্য আদর্শ হবে এই বই টি।

Get Rich Quick: বইয়ের নাম দেখে আনন্দিত হবার কিছু নেই। এখানে দ্রুত টাকা বানানোর পদ্ধতি শেখানো হয় নি। বইতে শেখানো হয়েছে, কিভাবে আপনার ই-কমার্স ব্যবসাকে সবার কাছে জনপ্রিয় করতে পারবেন।

Don’t Make Me Think: ই-কমার্স ব্যবসা শুরু করার পর বইটি পড়ে আপনি আপনার ওয়েবসাইট কে কিভাবে আরও ভালো এবং উন্নত করা যায় ক্রেতাদের আকর্ষণের জন্য, সেই সম্পর্কে জানতে পারবেন। যারা অভিজ্ঞ কিংবা যারা নতুন এই ব্যবসাতে, সবার জন্যই এই বইটি সহজ ভাবে লিখা হয়েছে।

You Should Test That: বইটি পড়লে একটা আগ্রহী ভিজিটরকে  কিভাবে আপনি ক্রেতায় পরিণত করবেন, সে সম্পর্কে ভালো ভাবে জানতে পারবেন। ধরেন, আপনার পেজে বা ওয়েবসাইটে অনেক মানুষ আসছে। কিন্তু আপনার যদি সেল না হয়, তাহলে লাভ নেই। এই বইয়ে বিস্তারিত ভাবে বলা আছে, কিভাবে একজন আগ্রহী মানুষকে আপনি ক্রেতায় পরিণত করতে পারবেন খুব সহজে।

Crushing It: লেখক আমার খুব পছন্দের একজন উদ্যোক্তা এবং ব্যবসায়ী। গ্যারি ভেনারচুক নাম। সোশ্যাল মিডিয়া সাইট যেমন ইউটিউব, ফেসবুক, টুইটার, লিঙ্কডইন, ইন্সটাগ্রাম এবং পিন্টারেস্ট থেকে কিভাবে সেল নিয়ে আসা যায়, সে বিষয়ে লেখক বিস্তারিত ভাবে বলেছেন। বইটি পড়লে ফেসবুক এবং ইউটিউব মার্কেটিং সম্পর্কে অনেক ভালো কিছু তথ্য আপনারা পাবেন। যারা পার্সোনাল ব্রান্ডিং ভালো ভাবে করতে চান, তাদেরকে আমি অবশ্যই এই বইটি পড়তে বলব। অনেক কিছু সহজ হয়ে যাবে বইটি পড়ার পর।

Leave a Comment

error: Content is protected !!