ঘরে বসে রিমোট কাজ করার গুরুত্ব

আজকের দিনে এই সময়ে রিমোট ভাবে বা ঘরে বসে কাজ করার গুরুত্ব কতটুক, সেটা আমরা সবাই জানি। আপনি যদি দেখেন ভালো ভাবে, তাহলে খুঁজে পাবেন যে প্রতি টা ইন্ডাস্ট্রিতেই এখন ঘরে বসে কাজ করার প্রবনতা বেড়েছে চাই সেটা চাকরিদাতা হন আর চাকরিজীবী হন।
🍁পৃথিবীর বড় বড় কোম্পানি রা এখন তাদের কর্মীদের বলেই দিয়েছে, তারা তাদের সুবিধামত ঘরে বসেই অফিসের কাজ করতে পারবে। তাদের ভেতর গুগল, মাইক্রোসফট, ফেসবুক অন্যতম।
আর করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের পড়ে ঘরে বসে কাজ করা এখন একদম বাস্তবতা। এই পোস্টে আমি আলোচনা করছি ঘরে বসে কাজ করার কিছু গুরুত্বপূর্ণ দিক। চলুন পড়ে নেই।
🍁প্রতিদিনের জীবনের একটা ভারসাম্য তৈরি হয়। কয়েক বছর আগেও অনেক কোম্পানির জন্য ঘরে বসে কাজ করার এই ধারনা একদম অসম্ভব মনে হয়েছিল। যারা জব করতেন, তাদের প্রায় সবাইকেই অফিসে যেয়ে কাজ করতে হত। সবচেয়ে বেশি যে সুবিধা আমরা পাচ্ছি, সেটা হল জীবনের সাথে স্বাস্থ্যকর একটা ভারসাম্য। অনেক সময় আমাদের বেঁচে যাচ্ছে, কারন আমরা বাসায় বসে কাজে মনোযোগ দিতে পারছি এবং দীর্ঘ সময় আমাদের যাত্রাপথে জার্নি করতে হচ্ছে না। এতে অনেক সময় আমাদের সাশ্রয় হচ্ছে। ক্লান্তিবোধ লাগছে না সেভাবে।
🍁 আপনার অধিক ব্যক্তি স্বাধীনতা থাকে। আপনি আপনার ব্যক্তিগত জীবনের অনেক কাজ ঠিক সময় মত করতে পারেন। ধরাবাঁধা কোন নিয়ম নেই। আপনি সঠিক সময়ে অফিসের কাজ বা ব্যবসার কাজ করে একসাথে অন্য কাজ গুলিও করতে পারছেন ঠিক ভাবে।
🍁আপনার স্বাস্থ্যের উন্নতি হয়। ঘরে বসে কাজের কারনে আপনি সঠিক সময়ে খাবার খেতে পারছেন, স্বাস্থ্যের দিকে লক্ষ্য রাখতে পারছেন। নিয়ম মত খেতে পারছেন। এতে স্বাস্থ্যের উন্নতি হয়।
🍁আপনার প্রোডাক্টীভিটি বা কাজের গতি বাড়বে। ঘরে বসে সঠিক ভাবে আপনি টানা কাজ করতে পারেন। এর ফলে কাজের মানের অনেক উন্নতি হয়। কাজের ফলাফলে বেশ পরিবর্তন হয়।
🍁অনেক খরচ বেঁচে যায়। কর্মীরা বাসায় বসে কাজ করার ফলে অফিসের অনেক খরচ বেঁচে যায়। যারা অফিসে যেতেন, তাদের যাতায়াত ভাড়া সহ অন্য কাজে বেশ সাশ্রয় হয়। সব কিছুতে বেশ সাশ্রয় হয়।

Leave a Comment

error: Content is protected !!